আমাদের সম্পর্কে

মানুষের মৌলিক চাহিদাগুলোর মধ্যে বস্ত্রের অবস্থান দ্বিতীয়। মানব জীবনের সূচনা এবং শেষ হয় বস্ত্রের আচ্ছাদনের মাধ্যমে। বেঁচে থাকার জন্য যেমন খাদ্যের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে তেমনি সমাজে সভ্যতার সঙ্গে বেঁচে থাকতে বস্ত্রের গুরুত্ব অপরিসীম। বস্ত্র এখন শুধু লজ্জা নিবারণের অনুসঙ্গ নয়, এটি এখন ব্যক্তিত্ব প্রকাশের উপাদান হিসাবে মানুষের জীবনের সাথে জড়িয়ে রয়েছে।

বস্ত্রের বহুমূখী ব্যবহারের ফলে চাহিদার সাথে যোগানের সামঞ্জস্য রাখতে দেশে গড়ে উঠেছে অসংখ্য বস্ত্র ও বস্ত্র সংশ্লিষ্ট ইন্ডাস্ট্রিজ। এসকল টেক্সটাইল ইন্ডাস্ট্রিতে সংযোজিত হচ্ছে সর্বাধিক প্রযুক্তির মেশিনারিজ, যার অপারেশনাল ও মেইনটেন্যান্স সংক্রান্ত সকল দায়-দায়িত্ব পালন করতে হয় টেক্সটাইল প্রকৌশলীকে। দেশে দক্ষ টেক্সটাইল প্রকৌশলীর ঘাটতি থাকায় কোন কোন ক্ষেত্রে বিদেশী বস্ত্র প্রযুক্তিবিদদের স্মরণাপন্ন হতে হয়। বিষয়টি অনুধাবন করে সরকার দেশে মধ্যমানের টেক্সটাইল প্রকৌশলী তৈরীর জন্য বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের অধীন বস্ত্র অধিদপ্তর কয়েকটি টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট স্থাপন করেছে।

নাটোর টেক্সটাইল এ প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে অন্যতম। ২০১৬ সালে শিক্ষা কার্যক্রম চালু করা এ প্রতিষ্ঠানটি ইতোমধ্যেই নাটোর জেলায় বেশ পরিচিতি লাভ করেছে। ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কের পাশে রামাইগাছী নামক স্থানে পাঁচ একর জায়গার উপর অত্যন্ত নান্দনিক নির্মাণশৈলীর অবকাঠামো বিশিষ্ট নাটোর টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট ক্যাম্পাস। এ প্রতিষ্ঠানে রয়েছে অত্যাধুনিক মেশিনারিজ সমৃদ্ধ ইয়ার্ণ মেনুফ্যাকচারিং ল্যাব (কার্পাস), ফেব্রিক মেনুফ্যাকচারিং ল্যাব (জামদানী), ওয়েট প্রসেসিং ল্যাব (বর্ণালী), জুট স্পিনিং ল্যাব (সোনালী আঁশ), এ্যাপারেল মেনুফ্যাকচারিং ল্যাব, ফ্যাশন ডিজাইন ল্যাব, টেক্সটাইল টেস্টিং ও কোয়ালিটি কন্ট্রোল ল্যাব, ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কশপ, কম্পিউটার ও তথ্য প্রযুক্তি ল্যাব, পদার্থ বিদ্যা ল্যাব এবং রসায়ন বিদ্যা ল্যাব। ল্যাবরেটরীগুলোতে শিক্ষার্থীদের হাতে কলমে শিক্ষা দিয়ে দক্ষ প্রকৌশলী হিসাবে গড়ে তোলা হয়। দেশের টেক্সটাইল ইন্ডাস্ট্রিগুলোর ন্যায় সর্বশেষ প্রযুক্তির মেশিন সমৃদ্ধ ল্যাব থাকায় এ প্রতিষ্ঠানে পর্যাপ্ত পরিমানে গবেষণার সুযোগ রয়েছে।

নাটোর টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট হতে ডিপ্লোমা-ইন-টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রী অর্জন করে শিক্ষার্থীরা দেশের টেক্সটাইল শিল্পের উন্নয়নে অংশীদার হয়ে সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মানে ভুমিকা রাখবে। নাটোর টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট নাটোর তথা সমগ্র উত্তাঞ্চলের বেকারত্ব দুরীকরণের ক্ষেত্রে হয়ে উঠবে এক উজ্জল বাতিঘর।